রেজি নংঃ ডিএ ১৩৬৩ | শনিবার, ৩১ অক্টোবর ২০২০, ১০:৩৩ পূর্বাহ্ন


রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের সেলিব্রেটি হলে সোমবার বিকালে মোস্তাফা জব্বার ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী হিসেবে এবং জুনাইদ আহমেদ পলক তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী হিসেবে ফের দায়িত্ব গ্রহণ করায় তাদের অভিনন্দন জানানোর লক্ষ্যে বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব সফটওয়্যার অ্যান্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস-বেসিস, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি-বিসিএস, ইন্টারনেট সার্ভিস প্রোভাইডার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-আইএসপিএবি, বাংলাদেশ অ্যাসোসিয়েশন অব কলসেন্টার অ্যান্ড আউটসোর্সিং- বাক্য, ই-কমার্স অ্যাসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ-ই-ক্যাব যৌথভাবে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার, বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি। অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন বেসিস সভাপতি সৈয়দ আলমাস কবীর, জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি ফারহানা এ রহমান, সহ-সভাপতি (প্রশাসন) শোয়েব আহমেদ মাসুদ, সহ-সভাপতি (অর্থ) মুশফিকুর রহমান, পরিচালক তামজিদ সিদ্দিক স্পন্দন, পরিচালক দিদারুল আলম ও পরিচালক মোস্তফা রফিকুল ইসলাম ডিউক। এছাড়াও বিসিএস সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার সুব্রত সরকার, আইএসপিএবির সভাপতি এমএ হাকিম, বাক্যের সভাপতি ওয়াহিদুর রহমান শরীফ এবং ই-ক্যাবের সভাপতি শমী কায়সার। অনুষ্ঠানে তথ্যপ্রযুক্তি খাতের ১ হাজারেরও বেশি প্রতিষ্ঠানের কর্ণধার এবং উচ্চপদস্থ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। স্বাগত বক্তব্যে বেসিস সভাপতি বলেন, প্রধানমন্ত্রীকে অসংখ্য ধন্যবাদ আমাদের অভিভাবক হিসেবে এমন দুজনকে বেছে নেওয়ার জন্য, যারা তথ্যপ্রযুক্তি খাতের আদ্যোপান্ত পুরোটাই জানেন। বেসিসের পক্ষ থেকে আমি ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার এবং তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলককে প্রাণঢালা অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। ডিজিটাল বাংলাদেশের যে অগ্রযাত্রা চলছে, তা বেগবান হবে আমাদের ঐক্যবদ্ধ প্রচেষ্টায়। এছাড়াও নিজ নিজ বক্তব্যে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী এবং তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানান বিসিএস সভাপতি ইঞ্জিনিয়ার সুব্রত সরকার, আইএসপিএবির সভাপতি এমএ হাকিম, বাক্যের সভাপতি ওয়াহিদুর রহমান শরীফ এবং ই-ক্যাবের সভাপতি শমী কায়সার। বিশেষ অতিথির বক্তব্যে তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী বলেন, বেসিস, বিসিএস, আইএসপিএবি, বাক্য এবং ই-ক্যাবকে ধন্যবাদ সুন্দর একটি আয়োজনের জন্য। তথ্যপ্রযুক্তি খাত আজ যে উচ্চতায় আসীন হয়েছে, তার কৃতিত্ব তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি বিভাগের পাশাপাশি খাতসংশ্লিষ্ট বাণিজ্য সংগঠনগুলোরও। তথ্যপ্রযুক্তি খাতভিত্তিক বাণিজ্য সংগঠন একসঙ্গে মিলে কাজ করছে বলেই তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা নিজেদের চ্যালেঞ্জের কথা জানাতে পারছেন এবং সরকারের তরফ থেকে বরাদ্দকৃত প্রণোদনা সঠিকভাবে পাচ্ছেন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী বলেন, তথ্যপ্রযুক্তি খাতভিত্তিক বাণিজ্য সংগঠনগুলোর কাজের পরিসর ও চ্যালেঞ্জ আমি খুব কাছ থেকে দেখেছি। তথ্যপ্রযুক্তি খাতভিত্তিক প্রতিষ্ঠানের প্রত্যাশা এবং সম্ভাবনা সম্পর্কেও আমি ওয়াকিবহাল। সৌভাগ্যের বিষয়, বেসিস, বিসিএস, আইএসপিএবি, বাক্য এবং ই-ক্যাব নিজ নিজ সদস্যদের তথা তথ্যপ্রযুক্তি খাতের চাহিদা এবং চ্যালেঞ্জের প্রকৃত তথ্য আমাদের সামনে তুলে ধরছে এবং সরকারও সে মাফিক কাজ করে এসেছে, করবেও। স্থানীয় বাজার সম্প্রসারণ ও স্থানীয় তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন আমাদের প্রধান লক্ষ্য। দেশীয় তথ্যপ্রযুক্তি খাতের সক্ষমতা বাড়লেই সুদৃঢ় হবে ডিজিটাল বাংলাদেশের ভিত্তি। ২০২১ সালের মধ্যে ডিজিটাল বাংলাদেশ রূপকল্প বাস্তবায়নে আমাদের সবাইকে একসঙ্গে কাজ করতে হবে। সবশেষে ফুল এবং ক্রেস্ট দিয়ে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী এবং তথ্য ও যোগাযোগপ্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা জানান তথ্যপ্রযুক্তি সংগঠনের প্রতিনিধিরা।

Share on Facebook Share on Twitter

আরও পড়ুন

photo of me

প্রকাশক ও সম্পাদক: এ্যাডঃ শেলী সুলতানা
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক: বিএম ফরহাদ হোসেন

প্রকাশক কার্যালয়: ৫৭১, পুর্ব কাজীপাড়া,
মিরপুর, ঢাকা -১২১৬

বার্তা কক্ষ: +৮৮ ০২৯০৩০৬৭৫

ইমেইল : editor@modhusanda24.com
বার্তাকক্ষ : modhusanda.bd@gmail.com

© 2019 All Rights modhusanda24.com

Design & Developed By:

Top